Cart
খাসফুড আপডেট

আমাদের সালমান ভূঁইয়া ও ঘি এর সাতকাহন

ঘি এর সাতকাহন

ভূঁইয়া বাড়ির সালমান ভূঁইয়া অস্থির ভাবে পায়চারি করছেন। একমাত্র ছেলের ওয়ালিমা আজ। আত্মীয়-স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশী, গরীব-মিসকিন সহ অনেক মানুষের খাবারের আয়োজন। পুরান ঢাকার বিশাল ব্যবসায়ী সালমান ভূঁইয়া নিজে দাঁড়িয়ে থেকে রান্না-বান্নার তদারকি করছেন। বাজারের সবচেয়ে খাঁটি উপাদান নিজে গিয়ে কিনে এনেছেন। কিন্তু তবুও তার মন ভরছে না। এলাকার সেরা বাবুর্চি দিয়ে রান্না হচ্ছে তবুও কী যেন একটা নেই?? জিভে পানি নিয়ে আসা খাবারের ঘ্রাণে মৌ-মৌ করা ঘ্রাণটা যেন আজ অনুপস্থিত।

ছোটবেলার স্মৃতিতে ফিরে গিয়ে বারবার বিষন্ন হচ্ছেন সালমান ভূঁইয়া। কোথায় গেল সেই ঘ্রাণ, কোথায় গেল সেই স্বাদ।

ভেজাল খেতে খেতে আলসার বাঁধিয়েছেন আজ ১০ বছর হল। লিভার-কিডনির টেস্টেও বছরে চলে যাচ্ছে অনেক টাকা। তার উপর আছে হাসপাতালে দৌড়াদৌড়ি। অত-শত ভাবতেই সালমান ভূঁইয়ার চোখ পড়ল “খাঁটি গাওয়া ঘি” পাত্রটার উপর। বাজারের সেরা, অমুক-তমুক নামে যে ঘিটা তিনি কিনেছেন মূল সমস্যাটা সেখানেই। পানির মত টলটলে ঘিয়ের স্বাদও যেন পানির মতই। এখন কী করবেন সালমান ভূঁইয়া??

জ্বী, শুধু সালমান ভূঁইয়াই নন, এই সমস্যা এখন এই দেশের প্রতিটি বাসা-বাড়িতেই। ভেজাল আর বিষে আমরা ভুলেই গেছি আসল জিনিসের স্বাদ। বর্তমান প্রজন্ম হয়ত জানেই না আসল ‘ঘি’ এর রং-স্বাদ কেমন।

খাবারের সেই হারানো স্বাদ ও মান ফিরিয়ে আনতে ‪#‎Khaasfood সদা বদ্ধপরিকর। গরুর দুধ দোহনের পরে সেটা বেশ কিছু সময় রেখে দিলে যে “সর” বসে সেটা থেকে প্রস্তুত “ঘন ও মোটা” লেয়ারের ঘি নিয়ে এল  #‎খাসফুড । স্বাদ কেমন?? খেতে হবে না শুধু ঘ্রাণ নিয়েই দেখুন। আর রান্নায় ব্যবহার করলে তো আজ সালমান সাহেবের এই অস্থিরতা হতো না। তো সালমান ভূঁইয়ার চিন্তাতো সালমান ভূঁইয়ার কাছেই, আপনার চিন্তা দূর করতে আজই অর্ডার করুন আমাদের অনলাইন শপে।