মাশরুম রেসিপি | জেনে নিন মাশরুম দিয়ে নানান মুখরোচক খাবার তৈরির নিয়ম
Cart
অর্গানিক খাদ্য রেসিপি

মাশরুম দিয়ে নানান মুখরোচক খাবার তৈরির নিয়ম (পর্ব-১)

মাশরুম রেসিপি

স্বাগতম মাশরুম রেসিপি নিয়ে খাসফুডের এই বিশেষ আয়োজনে

চৌধুরীবাড়িতে আজ আনন্দ। এইমাত্র জহির চৌধুরীর আমেরিকা প্রবাসী ছোটছেলে রাকিব ফোন করে জানিয়েছে আগামী সপ্তাহে সপরিবারে আসছে সে নিজের দেশে। সেই এইচএসসি পরীক্ষা দিয়ে আজ থেকে দশ বছর আগে আমেরিকায় পাড়ি জমানো রাকিব বিয়ে করেছে বছর দুয়েক হল। তাঁদের একটা ফুটফুটে কন্যাও রয়েছে। গত দুই বছরে রাকিব দেশেও আসেনি, ফলে নাতনিকে সামনাসামনি দেখার সৌভাগ্য হয়নি জহির চৌধুরী দম্পতির। এবার তাই সবার মনেই আনন্দের বাঁধ ভেঙ্গেছে।

জহির সাহেবের স্ত্রী রাজিয়া বেগম যারপরনাই উৎফুল্ল। বড় ছেলের বৌ নাদিরাকে নিয়ে লেগে গেছেন পরিকল্পনা করতে, ছোটছেলে এবং তাঁর বৌ-বাচ্চাকে আনলে কি খাওয়াবেন না খাওয়াবেন।

– শোন মা, ছেলেটা আমার বহু বছর পর আসছে। বৌ আর বাচ্চাটা তো আমাদের দেখেই নি আগে। আমাদের সব ভালো ভালো রেসিপিগুলো এ কটা দিন রান্না করে খাওয়াতে হবে। বৌমা খেয়ে দেখুক তাঁর বড় জা আর শাশুড়ির রান্নার গুণ!
– কি কি খাওয়াবেন আম্মা?
– চিংড়ির মালাইকারী, মুরগ মুসল্লম, গরুর কালাভুনা, রুই মাছের মাথা দিয়ে মুড়িঘন্ট… আরও কয়েকটা আইটেমের নাম বল তো মা কি কি খাওয়ানো যায় ওদের!

পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন জহির সাহেব-রাজিয়া বেগম দম্পতির বড় ছেলে নাকিব চৌধুরী। তিনি তাঁর স্ত্রী আর মায়ের এই কথোপকথন শুনে থেমে গেলেন। বললেন,
– মা তুমি কি পাগল হয়েছ?
– কেন বাবা কি হল?
– তোমার ছোট বউ জাত আমেরিকান, তারা খাবে এসব মুরগ মুসল্লম, কালাভুনার মত ভারী ভারী খাবার? এসব খাবার আমাদের পেটে সয়, আমাদের ভালো লাগে – তাই বলে তাঁদের কি আর ভালো লাগবে? বিশেষত রাকিবের কাছে শোন নি, তাঁর স্ত্রী কি পরিমাণ স্বাস্থ্য সচেতন?
– ভালো কথা মনে করেছিস তো বাবা! আমার তো মনেই ছিল না! কি খাওয়ানো যায় তাহলে তাঁদের বল তো একটু?
– মা শোন। দেশী-বিদেশী সবার কাছেই মাশরুমের কদর এখন অনেক বেশী। মাশরুমের বিভিন্ন রেসিপি এই কয়দিনে রান্না করে খাওয়াতে পারো তাঁদের!
– কিন্তু বাবা, আমি সেই আদিম আমলের মানুষ, এখনকার মাশরুম রান্না কি আর আমি পারি? নাদিরা মা তুমি পার?
– (নাদিরা) না মা, কিন্তু আমার এক বান্ধবীর কাছ থেকে মাশরুমের রেসিপি জানতে পারি।
– ঠিক আছে মা, তোমার বান্ধবীর কাছ থেকে কয়েকটা মাশরুমের রেসিপি এনে আমাদের জানাও তো!

শাশুড়ির আদেশ শুনেই সাথে সাথে নাদিরা ফোন করলেন তাঁর ছোটবেলার বান্ধবী জিনিয়াকে। জিনিয়া ঘটনা শুনে নাদিরাকে বেশ কয়েকটা মাশরুমের রেসিপি বাতলে দিলেন।

মাশরুমের আবেদন এরকমই সার্বজনীন। খাসফুড নাদিরা বেগমের কাছে জানতে চেয়েছিল সেসব মাশরুমের রেসিপি সম্পর্কে। সেই রেসিপিগুলোই পাঠকদের পড়ার জন্য প্রকাশ করলো খাসফুড!

মাশরুম রেসিপি

আপনারা হয়তো জানেন মাশরুম দিয়ে অনেক রকমের মুখরোচক খাবার বানানো যায়। তেমন কিছু খাবারের রেসিপি নিয়ে হাজির হয়েছি আজ আমরা। চলুন জেনে নেই কিছু মাশরুম রেসিপি বা মাশরুম দিয়ে নানা ধরণের খাবার তৈরির নিয়মঃ

১. মাশরুম ফ্রাই

উপকরণ

মাশরুম : ২০-২৫ টি (২০০ গ্রাম)
ছোলার বেসন : ২০০ গ্রাম
চালের গুঁড়া :২ টেবিল চামচ
ডিম : ২ টা
লবণ : পরিমাণমত
সয়াবিন তেল : পরিমাণমত

প্রণালী

একটি পাত্রে বেসন ও চালের গুঁড়া পরিমাণমত পানি ও লবণ দিয়ে মিশিয়ে নিন। ডিম ভেঙ্গে মিশ্রণের মধ্যে মিশিয়ে নিন। কড়াইতে সয়াবিন তেল গরম করে একটি করে মিশ্রণে ডুবিয়ে ভেজে নিন।

২. মাশরুম সবজি (১০ জনের মতো)

উপকরণ

মাশরুম : ২৫০ গ্রাম
আলু : ২০০ গ্রাম
বাঁধাকপি : ২০০ গ্রাম
বরবটি : ২০০ গ্রাম
ফুলকপি : ২০০ গ্রাম
গাজর : ১০০ গ্রাম
পিঁয়াজ : ৫০ গ্রাম
আদা-রসুন বাটা : ১ টেবিল চামচ
কাঁচা মরিচ : ৫-৭ টা
লবণ : পরিমাণমত
সয়াবিন তেল : পরিমাণমত

প্রণালী

প্রথমে মাশরুম ছিঁড়ে হালকা গরম পানিতে ৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। মাশরুমের পানি ঝরিয়ে নিন। অন্যান্য সবজিগুলো টুকরো করে কেটে লবণ দিয়ে হালকা করে সিদ্ধ করে নিন। অন্য একটি পাত্রে তেল গরম করে আদা রসুন বাটা দিয়ে মাশরুমগুলো দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়তে থাকুন

পানি কমে গেলে তাতে সিদ্ধ করা সবজি গুলো দিয়ে লবণ ও কাঁচা মরিচ দিয়ে কিছুক্ষণ ঢেকে রাখুন। পানি কমে গেলে লবণ দেখে নামিয়ে নিন ও গরম গরম পরিবেশন করুন।

৩. মাশরুম সালাদ

উপকরণ

মাশরুম : ১০০ গ্রাম
শসা : ১০০ গ্রাম
টমেটো : ২০০ গ্রাম
গাজর : ১০০ গ্রাম
পিঁয়াজ : ৫০ গ্রাম
ঘি : পরিমাণমত
পনির : ৫০ গ্রাম
কাঁচা মরিচ : ৩-৪ টা

প্রণালী

প্রথমে মাশরুম টুকরো করে হালকা গরম পানিতে সিদ্ধ করে নিন। সিদ্ধ করা মাশরুম ও অনান্য সবজিগুলো টুকরো করে মিশিয়ে নিন। তার সাথে পনির, ঘি, কাঁচা মরিচ, লবণ মিশিয়ে পরিবেশন করুন।

৪. চিংড়ি মাশরুম

উপকরণ

মাশরুম : ২৫০ গ্রাম
চিংড়ি : ১০০ গ্রাম
পিঁয়াজ : ৫০ গ্রাম
আদা, রসুন, জিরা বাটা : ১ টেবিল চামচ
কাঁচা মরিচ : ৫-৭ টা
লবনঃ পরিমাণমত
সয়াবিন তেল : ৫০ গ্রাম

প্রণালী

প্রথমে চিংড়ি মাছ পরিস্কার করে ধুয়ে নিন। মাশরুম টুকরা করে নিন। কড়াইতে তেল গরম করে পিঁয়াজ দিয়ে নাড়ুন। অন্যান্য মশলাগুলো দিয়ে নাড়ুন। মশলা কষানো হয়ে গেলে চিংড়ি মাছ দিয়ে নাড়ুন। মাছ সিদ্ধ হয়ে গেলে মাশরুমের টুকরাগুলো দিন। পরিমাণমত পানি, লবণ ও কাঁচামরিচ দিয়ে কিছুক্ষণ ঢেকে রাখুন। পানি কমে গেলে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

আমাদের আজকের আয়োজনে ৪টি মাশরুম রেসিপি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। আগামী পোষ্টে মাশরুম দিয়ে আরও ৪টি খাবার তৈরির রেসিপি শেখাবো আপনাদেরকে ইন শা আল্লাহ।

মাশরুম দিয়ে নানান মুখরোচক খাবার তৈরির নিয়ম (পর্ব-২)

ভালো মানের মাশরুম কোথায় পাবেন?

নাদিরা তার বোন জিনিয়ার কাছ থেকে অনেক ভাল ভাল মাশরুম রেসিপি জেনেছে। কিন্তু জিনিয়া নাদিরাকে আরও একটা দরকারি তথ্য দিয়েছে। তা হচ্ছে- ভাল মানের মাশরুম কোথায় পাওয়া যায়। বাজারে যে ধরণের মাশরুম পাওয়া যায় তার অধিকাংশই ভেজালে ভর্তি এবং অতিশয় নিন্মমানের। এই ধরণের মাশরুম শরীরের উপকারের তুলনায় অপকার বেশি করবে। তাই জিনিয়া তার বোনকে পরামর্শ দিয়েছে অনলাইন ফুডশপ khaasfood.com থেকে Mushroom order করার জন্য। আপনিও খাসফুড থেকে মাশরুম কিনতে পারেন নির্দ্বিধায়। অনালাইনে অর্ডার করলে পণ্য পৌঁছে যাবে আপনার দুয়ারে।